Spread the love

Featured Image: Wikimedia Commons.

Image: Perry-Castañeda Library Map Collection, The University of Texas at Austin.

পূর্বসাল

৭০০ ওলমেক সভ্যতার উন্মেষ।

৫০০ পূর্বসাল-৭০০ সাল ‘মন্টে আলবান’: আজকের দিনের ওয়াজাকা রাজ্যে সভ্যতার বিকাশ ঘটছে।

৪০০ পূর্বসাল-৮০০ সাল মায়া সভ্যতা।

সাল

২০০ ওলমেক সভ্যতার অবক্ষয়।

২০০-৮০০ ‘তেওতিহুয়াচান’: আজকের দিনের মেক্সিকো সিটির উত্তরের ক্ষমতাশালী নগররাষ্ট্র।

৮০০-৯০০ মায়া সভ্যতার অবক্ষয়কাল।

৯০০-১২০০ টলটেক সভ্যতা।

১৩০০ উত্তর থেকে চিচিমেকদের হামলার সূচনা।

১৩২৫ অ্যাজটেকরা প্রতিষ্ঠা করলেন তাঁদের রাজধানী: টেনোখটিটলান।

১৪০০-১৫২১ অ্যাজটেক সভ্যতা।

১৪৪০-৬৪ প্রথম মকতেজুমার রাজত্বকাল।

১৪৯২ পশ্চিম গোলার্ধে স্পেনীয় অভিযাত্রিকদের আগমন। ক্যারিবিয়ানে পা রাখলেন ক্রিস্টোফার কলম্বাস।

১৫০২-২০ দ্বিতীয় মজতেজুমার রাজত্বকাল।

১৫১৯ ১১টি জাহাজ, ১০০ জন নাবিক, আর ৫০৮ জন সৈনিক নিয়ে মেক্সিকো উপসাগরের উপকূলে পৌঁছালেন হার্নান কোর্তেস। ভেরাক্রুজে স্পেনীয়দের আগমন। টলাক্সাকালানদের সাথে মোলাকাত। ‘চোলুলা হত্যাযজ্ঞ’। নভেম্বর ১৯: অ্যাজটেক রাজধানী টেনোখটিটলানে স্পেনীয়দের আগমন ঘটল। দ্বিতীয় নমকতেজুমাকে বন্দী করা হল।

১৫২১ আগস্ট ১৩: স্পেনীয় উপনিবেশিক শক্তির হাতে টেনোখটিটলানের পতন ঘটল। টেনোখটিটলানকে সম্পূর্ণরূপে ধ্বংস করলেন কোর্তেস। শেষ হয়ে গেল অ্যাজটেক সভ্যতা।

১৫২২ ধ্বংসকৃত টেনোখটিটলানকে কোর্তেস তাঁর নতুন রাজধানী প্রতিষ্ঠা করার জন্য নির্বাচিত করলেন: মেক্সিকো সিটি।

মেক্সিকোয় ধর্মপ্রচারকদের আগমন।

১৫২৯ মেক্সিকোয় বিশপ হুয়ান দে জুমারাগার আগমন।

১৫৩১ হুয়ান দিয়েগো নামের এক আদিবাসী আমেরিকান দাবি করলেন, তিনি কুমারী মাতাকে দেখতে পেয়েছেন। হুয়ানের নিবাসস্থল গুয়াডালুপের নামে এই কালো চামড়ার মহিলার নাম রাখা হল গুয়াডালুপের কুমারী। কালক্রমে মহিলা মেক্সিকোর প্যাট্রন সেইন্টে পরিণত হন।

১৫৩৫ মেক্সিকোয় এলেন দেশটির প্রথম উপনিবেশিক ভাইসরয় দন আন্তোনিও দে মেনদোজা।

১৫৪০য়ের দশক আদিবাসী আমেরিকানদের ওপর ইওরোপীয় উপনিবেশিক শক্তিগুলোর নির্যাতনের বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়ে উঠলেন স্পেনীয় ধর্মযাজক বার্তালোমিও দে লা কাসাস। তিনি নিজেই শুরুতে একজন দাসমালিক ছিলেন, কিন্তু উপনিবেশিক অভিজ্ঞতা বার্তালোমিওর হৃদয়ে পরিবর্তন আনে। তিনি নিজের আদিবাসী আমেরিকান দাসদের মুক্ত করে দেন; এবং উপনিবেশবাদের বিরুদ্ধে ও দাসপ্রথার বিলোপসাধনের লক্ষ্যে লড়াইয়ে নামেন। ১৫৫০ সালে বার্তালোমিও স্পেনীয় ‘মানবতাবাদী’ দার্শনিক ও ধর্মতাত্ত্বিক হুয়ান জিনেস দে সেপুলভাদার সাথে একটি বাহাসে লিপ্ত হন। এটি ভাল্লাদোলিদ বাহাস নামে বিখ্যাত হয়ে আছে। সেপুলভাদা প্লেটোর দর্শন ও টমাস অ্যাকুইনাসের ধর্মতত্ত্বের দোহাই দিয়ে দাবি করেন, আদিবাসী আমেরিকানরা ‘মানবেতর’ (less than human) কিছু, তাই তাদেরকে মানুষ করতে ইওরোপীয় উপনিবেশিক শাসনের দরকার আছে। বার্তালোমিও এই দাবি করে খারিজ করে দিয়ে বলেন, আদিবাসী আমেরিকানরা পূর্ণাঙ্গ মানুষ, তাই কোন ডাণ্ডার দরকার নাই।

১৫৪৬ জাকাতেকাসে সোনা আবিষ্কৃত হল। স্বর্ণলালসায় হাজার হাজার স্পেনীয় পড়িমড়ি করে মেক্সিকোর দিকে ছুটল। স্বর্ণ ধুম দেখা দিল।

১৫৫১ মেক্সিকোয় প্রতিষ্ঠিত হল পশ্চিম গোলার্ধের প্রথম বিশ্ববিদ্যালয়।

১৫৫২ প্রতিষ্ঠিত হল গুয়াডালাজারা। আদিবাসী আমেরিকানদের রক্ষায় নতুন আইন পাশ হল।

১৬৫১-৯৫ নারীবাদী লেখিকা সর জুয়ানা ইনেস দে লা ক্রুজের জীবনকাল।

১৮২১ ফেব্রুয়ারি ২৪: ‘প্ল্যান দে ইগুয়ালা’: স্পেনীয় উপনিবেশিক শক্তির হাত থেকে মেক্সিকোর পতন ঘোষণা করা হল। সেপ্টেম্বর: স্পেনের কাছ থেকে স্বাধীনতা লাভ করল মেক্সিকো।

মে ১৮২২-ফেব্রুয়ারি ১৮২৩ মেক্সিকো সাম্রাজ্য।

১৮৩৬ টেক্সাসের সাথে যুদ্ধ।

১৮৩৮ পেস্ট্রি যুদ্ধ।

১৮৪৬-৪৮ যুক্তরাষ্ট্র-মেক্সিকো যুদ্ধ।

১৮৪৮ গুয়াডালুপে-হিডালগো চুক্তি।

১৮৫৪ দে আয়ুতলা বিপ্লব।

১৮৫৭ একটি সংবিধান প্রণয়ন করা হল।

১৮৫৮-৬১ সংস্কারের যুদ্ধ।

১৮৬২-৬৭ মেক্সিকো ফরাসি দখলদারিত্ব।

১৮৭৬-১৯১১ পোরফিরিও দিয়াজের একনায়কতন্ত্র।

১৯০৬ কানানিয়া টেক্সটাইল কারখানায় ধর্মঘট।

১৯০৭ রিও ব্লাংকোয় ধর্মঘট।

১৯১৪-১৮ ‘প্রথম বিশ্বযুদ্ধ’।

১৯১৪ যুক্তরাষ্ট্র ভেরাক্রুজ দখল করে নিল।

১৯১৭ প্রতিষ্ঠা করা হল পার্তিদো ন্যাসিওনাল রেভলুসিওনারিও (পিআরআই)।

১৯১৯ আততায়ীদের হাতে খুন হয়ে গেলেন এমিলিয়ানো জাপাতা।

১৯২০-২৪ আলভারো ওবরেগনের প্রেসিডেন্সি।

১৯২৪-২৮ প্লুটার্কো এলিয়াস ক্যালেসের প্রেসিডেন্সি।

১৯২৬-২৯ ক্রিস্তেরো বিদ্রোহ।

১৯২৯-২০০০ মেক্সিকোতে পিআরআইয়ের শাসনকাল।

১৯২৮ আততায়ীদের হাতে খুন হলেন অবরেগন।

১৯৩৪-৪০ লাজারো কার্ডেনাসের প্রেসিডেন্সি।

১৯৩৭ মেক্সিকোতে রেল রাস্তা জাতীয়করণ করা হল।

১৯৩৮ মেক্সিকোতে তেল শিল্প জাতীয়করণ করা হল।

১৯৩৯-৪৫ ‘দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ’।

১৯৪২ জার্মানির বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করল মেক্সিকো।

১৯৬৪-৭০ গুস্তাভ দাজ ওরদাজের প্রেসিডেন্সি।

১৯৬৮ টলাটেলোকো হত্যাযজ্ঞ। মেক্সিকো সিটিতে আয়োজিত হল গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিক।

১৯৭০-৭৬ লুই এছেভেরিয়ার প্রেসিডেন্সি।

১৯৭৬ কাম্পেছে উপসাগর আর মেক্সিকোর দক্ষিণপশ্চিমাঞ্চলে বিপুল পরিমাণ তেলের মজুদ আবিষ্কৃত হল।

১৯৭৬-৮২ হোসে লোপেজ পোর্তিলোর প্রেসিডেন্সি।

১৯৮০ মেক্সিকোর তেল সম্পদ বৃদ্ধি পেতে শুরু করল।

১৯৮০য়ের দশক তেল সংকট।

১৯৮২-৮৮ মিগুয়েল দে লা মাদ্রিদের প্রেসিডেন্সি।

১৯৮২ ব্যাংক শিল্পের জাতীয়করণ।

১৯৮৩ প্রতিষ্ঠিত হল জাপাতিস্তা মুক্তি ফৌজ (Ejército Zapatista de Liberación Nacional: EZLN)।

১৯৮৫ মেক্সিকো সিটির ভূমিকম্প।

১৯৮৮ নির্বাচিত হলেন কার্লোস স্যালিনাস দে গোরতারি।

১৯৯৪ যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, ও মেক্সিকোর মধ্যে গঠিত হল উত্তর আমেরিকার মুক্ত বাণিজ্য চুক্তি (নাফটা)। জাপাতিস্তা বিদ্রোহ।

১৯৯৯ মেক্সিকো সফর করলেন পোপ দ্বিতীয় জন পল।

২০০০ প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জিতলেন ন্যাশনাল অ্যাকশন পার্টির (প্যান) ভিনসেন্ট ফক্স।

২০০১ জাপাতিস্তা বিদ্রোহীরা ফক্স প্রশাসনের সাথে বাতচিত করার উদ্দেশ্যে চিয়াপাস থেকে মেক্সিকো সিটিতে এল।

২০০৩ যুক্তরাষ্ট্রের ইরাকে আগ্রাসনে সমর্থন দেয়া থেকে বিরত থাকল ফক্স প্রশাসন।

২০০৬ প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জিতলেন ন্যাশনাল অ্যাকশন পার্টির (প্যান) ফিলিপ ক্যালেড্রন।

২০০৮ মাদকের বিরুদ্ধে যুদ্ধে এবছর প্রায় ৬ হাজার ৩০০ মানুষ নিহত হন।

২০০৯ মেক্সিকো থেকে ছড়িয়ে পড়ল সোয়াইন ফ্লু।

২০১২ জুলাই প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জিতলেন পিআরআই’য়ের এনরিক পেনা নিয়েটো।

২০১৮ অক্টোবর: যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, আর মেক্সিকো একটা নতুন বাণিজ্য চুক্তি করল। দ্য ইউনাইটেড স্টেটস-কানাডা-মেক্সিকো এগ্রিমেন্ট (ইউএসএমসিএ)। এটা নাফটাকে প্রতিস্থাপিত করে।

তথ্যসূত্র

BBC. “Mexico profile – Timeline.” BBC, December 3, 2018.
https://www.bbc.com/news/world-latin-america-19828041

Girtzner, Charles F. 2006. Mexico. updated ed. Philadelphia: Chelsea House.

Kirkwood, Burton. 2009. The History of Mexico. 2nd ed. Santa Barbara, California: Greenwood Press.

নোট: ইরফানুর রহমান রাফিনের নন-ফিকশন সময়রেখা ঢাকার দিব্যপ্রকাশ কর্তৃক ২০২২ সালের ফেব্রুয়ারিতে প্রকাশিত হয়। এই ব্লগটি সেই বই সংশ্লিষ্ট গবেষণা প্রকল্প। ঢাকা, চট্টগ্রাম, ও সিলেটের বিভিন্ন বইয়ের দোকানে পাওয়া যাবে সময়রেখা, এবং অনলাইনে অর্ডার দিয়েও সংগ্রহ করা যাবে।

অনলাইন অর্ডার লিংকসমূহ

দিব্যপ্রকাশ । বাতিঘর । বইবাজার । বইয়ের দুনিয়া । বইফেরী । বুক হাউজ । ওয়াফিলাইফ । রকমারি

By irrafinofficial

ইরফানুর রহমান রাফিনের জন্ম ঢাকায়, ১৯৯২ সালে। বর্তমানে একটি অনলাইন সংবাদমাধ্যমে লিখে অন্নসংস্থান করেন। নিজেকে স্মৃতি সংরক্ষণকারীদের পরম্পরার একজন হিসাবে দেখেন। যোগাযোগ: irrafin2022@gmail.com

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Creative Commons License
Except where otherwise noted, the content on this site is licensed under a Creative Commons Attribution-ShareAlike 4.0 International License.